Notice :
Welcome To Our Website...Welcome to Dhaka Metro Rail
MRT pass ও Rapid Pass এর পার্থক্য

MRT pass ও Rapid Pass এর পার্থক্য

MRT pass ও Rapid Pass এর পার্থক্য
MRT pass ও Rapid Pass এর পার্থক্য

ঢাকা মেট্রোরেলের সবচেয়ে আলোচিত বিষয়বস্তু হচ্ছে কার্ড। অনেকেই দ্বিধাদ্বন্দে থাকেন যে কোনটা নিবেন আর কোনটায় সুবিধা বেশী! তাই আজ আমরা MetroRail Passengers Community- DHAKA এর সৌজন্যে জানবো MRT pass ও Rapid Pass এর পার্থক্যঃ

MRT pass Rapid Pass
১) MRT Pass নিতে লাগে ৫০০ টাকা। এরমধ্যে ২০০ টাকা জামানত আর ৩০০ টাকা ব্যবহার যোগ্য ব্যালেন্স। ১) Rapid Pass নিতে লাগে ৪০০ টাকা। এরমধ্যে ২০০ টাকা জামানত আর ২০০ টাকা ব্যবহার যোগ্য ব্যালেন্স।
২) MRT pass নিতে ও রিচার্জ  করতে পারবেন মেট্রোরেলের যেকোনো স্টেশন থেকে। DMTCL সরবরাহ করে। ২) Rapid Pass নিতে  ও রিচার্জ  করতে পারবেন ডাচ বাংলা ব্যাংকের নির্দিষ্ট শাখা- উপ শাখা ও নির্দিষ্ট এজেন্ট পয়েন্ট থেকে। DTCA সরবরাহ করে। অস্থায়ী ক্যাম্পেইন থেকেও কার্ড ক্রয় করা যায়। এছাড়াও Rapid Pass রিচার্জ  করতে পারবেন মেট্রোরেলের যেকোনো স্টেশন থেকেও।
 ৩) MRT Pass এ প্রতি বারে সর্বনিম্ন ২০ টাকা ও সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা রিচার্জ করা যাবে। এবং সর্বোচ্চ ব্যালেন্স রাখা যাবে ১০ হাজার টাকা। ৩) Rapid Pass এ প্রতিবারে সর্বনিম্ন ২০ টাকা ও সর্বোচ্চ ১ হাজার টাকা রিচার্জ করা যাবে। তবে সর্বোচ্চ ব্যালেন্স রাখা যাবে ১০ হাজার টাকা।
৪) MRT Pass এর ব্যালেন্সের মেয়াদ দশ বছর। ৪) Rapid Pass এর ব্যালেন্সের মেয়াদ আজীবন।
৫) MRT Pass ফের‍ত দিলে জামানতের টাকা থেকে ৫০ টাকা কর্তন করা হবে। তবে কার্ড অক্ষত অবস্থায় থাকতে হবে। ৫) Rapid Pass ফের‍ত দিলে জামানতের টাকা থেকে ২০ টাকা কর্তন করা হবে। তবে কার্ড অক্ষত অবস্থায় থাকতে হবে।
৬) MRT Pass হারিয়ে গেলে রিপ্লেসমেন্টের জন্য ২৫০৳ চার্জ লাগবে। তবে হারানো কার্ডটি খুঁজে পেয়ে জমা দিলে ১৫০ টাকা ফেরত পাবেন। এক্ষেত্রে কার্ড অক্ষত অবস্থায় থাকতে হবে। ৬) Rapid Pass হারিয়ে গেলে রিপ্লেসমেন্টের জন্য ৪০০৳ চার্জ লাগবে। তবে হারানো কার্ডটি খুঁজে পেয়ে জমা দিলে ১৮০ টাকা ফেরত পাবেন। এক্ষেত্রে কার্ড অক্ষত অবস্থায় থাকতে হবে।
৭) MRT Pass কার্ড বাহ্যিক দিকে ড্যামেজ হলে রিপ্লেসমেন্টে ২৫০ টাকা লাগবে (২০০ টাকা জামানত ও ৫০ টাকা প্রসেসিং ফি)। এছাড়া ব্লাকলিস্টেড বা আনরিডেবল কার্ড রিপ্লেসমেন্টে ৫০ টাকা চার্জ লাগবে। এক্ষেত্রে বাহ্যিক দিকে ফ্রেশ থাকতে হবে। ৭) Rapid Pass ড্যামেজ (ইন্টার্নাল/ এক্সটার্নাল সমস্যা) হলে ২০০ টাকা চার্জ লাগবে রিপ্লেসমেন্ট করতে।
৮) MRT Pass দিয়ে বর্তমানে শুধুমাত্র ঢাকা মেট্রোরেলে ভ্রমণ করা যাচ্ছে। তবে ভবিষ্যতে এর ব্যবহারের প্লেস বাড়বে। ৮) Rapid Pass দিয়ে ঢাকা মেট্রোরেল সহ নগর পরিবহন বাস ও উত্তরায় বিআরটিসি সাটল বাসে ব্যবহার করা যাচ্ছে। তবে ভবিষ্যতে এর ব্যবহারের প্লেস আরও বাড়বে।

উভয় কার্ডেই ঢাকা মেট্রোরেল ভ্রমণে রয়েছে ১০% ডিসকাউন্ট ।

আরও পড়ুনঃ ঢাকা মেট্রোরেলে যত জরিমানা

 

শেষ কথা

প্রিয় পাঠক বন্ধু, এই পোষ্টের মাধ্যমে আজকে আমরা জানলাম ‘MRT pass ও Rapid Pass এর পার্থক্য’ তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা। পরবর্তী পোস্টে আমরা জানবো ঢাকা মেট্রোরেলের অন্য কোনো বিষয়ে। আমাদের ওয়েবসাইটের প্রতিদিনের সকল পোষ্টের আপডেট জানতে ভিজিট করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। এছাড়া টেলিগ্রামে আপডেট পেতে জয়েন করে রাখুন আমাদের অফিশিয়াল টেলিগ্রাম চ্যানেল।

খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

4 responses to “MRT pass ও Rapid Pass এর পার্থক্য”

  1. […] আরও পড়ুনঃ MRT pass ও Rapid Pass এর পার্থক্য […]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© 2024 All rights reserved DhakaMetroRail.Com