Notice :
Welcome To Our Website...Welcome to Dhaka Metro Rail
এয়ারপোর্টে যেতে মেট্রোরেলের যে স্টেশনে নামবেন

এয়ারপোর্টে যেতে মেট্রোরেলের যে স্টেশনে নামবেন

এয়ারপোর্টে যেতে মেট্রোরেলের যে স্টেশনে নামবেন
এয়ারপোর্টে যেতে মেট্রোরেলের যে স্টেশনে নামবেন

এয়ারপোর্টে যেতে মেট্রোরেলের যে স্টেশনে নামবেন তা নিয়ে আজকে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করবো, আশাকরি এতে আপনাদের সময় ও অর্থ উভয়েই বাঁচবে। নিম্নে বিস্তারিত তুলে ধরা হলোঃ

মেট্রোরেল অবশ্যই এ শহরের সকল মানুষের জন্য একটি আশীর্বাদ স্বরূপ উপহার তা অস্বীকারের সুযোগ নাই। বর্তমানে মিরপুর থেকে উত্তরা যাতায়াতের এক নতুন মাইলফলক সৃষ্টি করেছে মেট্রোরেল।খুব কম সময়ে আরামদায়ক ও নিরাপদ ভ্রমণের নিশ্চয়তায় মেট্রোরেল হয়ে উঠেছে এ শহরের অন্যতম জনপ্রিয় বাহন।

অনেকের জিজ্ঞাসা থাকে মেট্রোরেল দিয়ে কীভাবে এয়ারপোর্ট বা তৎসংলগ্ন এলাকায় যাওয়া যায়।  যদিও এয়ারপোর্টের আশেপাশে কোন মেট্রো স্টেশন নেই তবুও অনেকে মেট্রোর স্বাদ নিয়ে এয়ারপোর্ট যেতে চান।  বর্তমানে মিরপুর থেকে এয়ারপোর্টগামী যে সকল বাস রয়েছে সেগুলোর  সবগুলোই টেকনিক্যাল কিংবা গাবতলী থেকে মিরপুর ১০ হয়ে কালশি- ইসিবি চত্বর – পার হয়ে এয়ারপোর্টে যায়। সেক্ষেত্রে শেওড়াপাড়া কিংবা কাজীপাড়ার যাত্রীগণকে মিরপুর-১০ এসে তারপর বাসে উঠে এয়ারপোর্ট  যেতে হয়। এ সমস্যা সমাধানে রয়েছে মেট্রোরেল। আগারগাঁও, শেওড়াপাড়া ও  কাজীপাড়া থেকে উত্তরগামী  যাত্রীগণ মেট্রোরেলে করে পল্লবী স্টেশনে এসে সেখান থেকে প্রজাপতি / পরিস্থান/ বসুমতি বাসে করে এয়ারপোর্ট পৌঁছাতে পারবেন।  আর মেট্রোরেলে সম্পূর্ণ ভ্রমণ করতে চাইলে উত্তরা উত্তর গিয়ে নেমে তারপর রিক্সা কিংবা লেগুনা অথবা বিআরটিসি বাসে উত্তরা জমজম টাওয়ার এসে  সেখান থেকে রাইদা বাসে এরপর পৌঁছে যেতে পারবেন। যদিও এই রুটটি সময় সাপেক্ষ এবং ব্যয়বহুল। তবে কেউ মেট্রোরেলের পূর্ণ ভ্রমণ অভিজ্ঞতা নিতে চাইলে এই রুট ব্যবহার করতে পারেন।

 

তবে আমরা প্রিফার করবো কাজীপাড়া- শেওড়াপাড়া – আগারগাঁও থেকে আসা যাত্রীদের এয়ারপোর্টে যেতে পল্লবী স্টেশন থেকে বাসে করেই। এবং মিরপুর-১ ,২ ও গাবতলী বা টেকনিক্যালের দিক থেকে আসা যাত্রীদের সরাসরি বাসে গমনেই। ভবিষ্যতে MRT Line-1 চালু হলে এয়ারপোর্ট থেকে অন্যান্য এলাকায় যাওয়া যাবে।

 

আরও পড়ুনঃ পল্লবী থেকে মেট্রোরেলে অন্যান্য স্টেশনের ভাড়ার তালিকা ও গন্তব্য

এছাড়াও উত্তরা-উত্তর স্টেশন থেকে আজমপুর ঘুরে এয়ারপোর্টে যেতে সময় এবং খরচের দিকে তুলনামূলক বেশি লাগবে, কারণ হাউজ বিল্ডিং বা আজমপুর থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত রাস্তায় তুলনামূলক বেশি জ্যাম থাকে। আপনি যেই সময় পল্লবী থেকে উত্তরা উত্তর ঘুরে এয়ারপোর্টে যাবেন তার আগেই পল্লবী স্টেশন থেকে বাসে করে এয়ারপোর্ট পৌছাতে পারবেন। এতে আপনার সময় এবং ঝামেলা তুলনামূলক কম লাগবে।

খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

One response to “এয়ারপোর্টে যেতে মেট্রোরেলের যে স্টেশনে নামবেন”

  1. […] আরও পড়ুনঃ এয়ারপোর্টে যেতে মেট্রোরেলের যে স্টেশ… […]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© 2024 All rights reserved DhakaMetroRail.Com